বিয়োজ্য কি? বিয়োজ্য সূত্র কোনটি?

আসসালামু আলাইকুম প্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধুরা। আজকে এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আমরা জানব বিয়োজ্য কি? কিংবা বিয়োজ্য কাকে বলে? এবং বিয়োজ্য নির্ণয় সূত্রটি কি? আমরা এখন ধাপে ধাপে এই বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করব। আপনাদের সুবিধার্থে কিছু অংকের প্রয়োগ ও তুলে ধরব। আশা করছি আপনারা এই প্রশ্নের উত্তর গুলো খুব ভালো ভাবে বুঝতে পারবেন।

বিয়োজ্য কি? বা বিয়োজ্য কাকে বলে?

আমরা সাধারণত বিয়োজ্য বলতে বুঝি বিয়োগ করার সময় ছোট যে সংখ্যাটি থাকে সেটিকে। চলুন নিচে বিয়োজ্য কাকে বলে সেটি দেখি।

বিয়োগ অংক করার সময় যে সংখ্যাকে বিয়োগ করা হয় তাকে বিয়োজ্য বলে।
অথবা যে সংখ্যা দিয়ে বিয়োগ করা হয় তাকে বিয়োজ্য বলে।

উদাহরণ স্বরূপ বলা যায়, মনে করেন ১০০-৪৭=৫৩, এইখানে বিয়োজ্য হচ্ছে ৪৭। আশা করছি এই বিষয়টি আপনাদের কাছে পরিষ্কার হয়েছে।

সবসময় মনে রাখবেন, বিয়োজ্য সবসময় বিয়োজন থেকে ছোট হয়।

বিয়োজ্য নির্ণয়ের সূত্রটি কি?

বিয়োজ্য নির্ণয়ের জন্য একটি সূত্র প্রয়োগ করতে হয়। এটি অনেকেই গুগুলে খুঁজ করে থাকেন। আপনাদের সুবিধার্থে আমরা এখন বিয়োজ্য সমান কি? এটি তুলে ধরব।

বিয়োজ্য নির্ণয়ের সূত্রটি হলো-

বিয়োজ্য= বিয়োজন – বিয়োগফল

উদাহরণ দিলে আপনাদের বুঝতে সুবিধা হবে। মনে করেন আপনার প্রশ্নে বিয়োজন = ৩৫ আছে এবং বিয়োগফল = ১০ আছে। বললো বিয়োজ্য নির্ণয় কর? তাহলে কি করবে।

প্রথমেই দেওয়া আছে দিয়ে মান গুলো লিখবে। যেমন-

দেওয়া আছে,

বিয়োজন= ৩৫

বিয়োগফল= ১০

বিয়োজ্য= ?

আমরা জানি,

বিয়োজ্য= বিয়োজন- বিয়োগফল

=৩৫-১০

= ২৫

তাহলে আমরা বিয়োজ্যের মান পেলাম ২৫।

আশা করছি আপনাদের কাছে বিয়োজ্য কাকে বলে? বিয়োজ্য নির্ণয়ের সূত্র এবং প্রয়োগ সবগুলো পরিষ্কার হয়েছে। তবু ও কেউ বুঝতে না পারবে কমেন্ট করে আপনার সমস্যা তুলে ধরবেন। আমরা অতি তাড়াতাড়ি আপনার সমস্যা সমাধান করে দেওয়ার চেষ্টা করব।

আরো পড়ুনঃ

পরিসংখ্যান সৃজনশীল প্রশ্ন ২০২৩ এসএসসি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *